চলে গেলেন ‘পথের পাঁচালী’র চিত্রগ্রাহক সৌমেন্দু

spot_img

সম্পর্কিত আর্টিকেল

৯ টাকা দেনমোহরে বিয়ের পিঁড়িতে অভিনেত্রী চমক

শোবিজ প্রতিবেদন: মাত্র ৯ টাকা দেনমোহরে বিয়ের পিঁড়িতে বসেন...

জটিল রোগে আক্রান্ত তাহসান দিলেন দুঃসংবাদ

গুরুতর জটিল রোগে আক্রান্ত দেশের জনপ্রিয় গায়ক, সুরকার, অভিনেতা...

সালমান মুক্তাদির হাসপাতালে

দেশের জনপ্রিয় ইউটিউবার ও অভিনেতা সালমান মুক্তাদির স্বাস্থ্য পরীক্ষার...

মোশাররফ করিমকে নিয়ে ‌‘আক্কেলগঞ্জ হোম সার্ভিস’

মোশাররফ করিমকে নিয়ে তৈরি হয়েছে টিভি ধারাবাহিক ‘আক্কেলগঞ্জ হোম...

চলে গেলেন সত্যজিৎ রায়ের বহু কালজয়ী ছবির চিত্রগ্রাহক সৌমেন্দু রায়। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯০ বছর। জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে বার্ধক্যজনিত সমস্যায় ভুগছিলেন সৌমেন্দু রায়। অবশেষে বুধবার (২৭ সেপ্টেম্বর) বালিগঞ্জ সার্কুলার রোডের বাড়িতেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

সত্যজিৎ ছাড়াও কাজ করেছেন তরুণ মজুমদার, তপন সিংহ, বুদ্ধদেব দাশগুপ্ত, উৎপলেন্দু চক্রবর্তী, রাজা সেনের মতো পরিচালকের সঙ্গে।

১৯৫৪ সালে সত্যজিৎ রায়ের সঙ্গে প্রথম পরিচয় হয় সৌমেন্দুর। সত্যজিতের প্রথম ছবি ‘পথের পাঁচালী’তে সৌমেন্দু ছিলেন সুব্রত মিত্রের সহকারী। এরপর ১৯৬১ সালে স্বাধীনভাবে সত্যজিতের সঙ্গে কাজ শুরু ‘তিন কন্যা’ দিয়ে।

সুব্রত মিত্রের তখন চোখের সমস্যার কারণে কাজ করা থেকে বিরতি নিয়েছিলেন। যদিও তিনি এর আগে সত্যজিৎ রায়ের ডকুমেন্টারি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের শুট করেছিলেন। সত্যজিতের সঙ্গে মোট ১৫টি ছবি করেছিলেন সৌমেন্দু বাবু। পেয়েছেন ভারতের রাষ্ট্রপতি পুরস্কার-সহ বহু সম্মান।

রূপকলা কেন্দ্রের সিনেমাটোগ্রাফি বিভাগের প্রধান ছিলেন সৌমেন্দু রায়। সত্যজিৎ সহ বিভিন্ন পরিচালকের সঙ্গে কাজের সময়কার খুঁটিনাটি তথ্য সংবলিত ডায়েরি, কয়েকটি চলচ্চিত্রের চিত্রনাট্যের কপি, শুটিং স্টিলের ডিজিটাল কপি তিনি ‘জীবনস্মৃতি’ নামের একটি সংস্থার হাতে তুলে দিয়েছেন। যাতে তা গবেষকদের কাজে লাগে পরবর্তী সময়ে। তার উপর একটি ৭২ মিনিটের তথ্যচিত্রও নির্মাণ করেছিলেন অরিন্দম সাহা সরদার ২০০৭ সালে,  যার নাম ‘সৌমেন্দু রায়’।

জানা গেছে, বিয়ে করেননি সৌমেন্দু বাবু। নিজের দাদার সঙ্গেই থাকতেন। আর মেতে থাকতেন সিনেমা, সিনেমা সংক্রান্ত পড়াশোনা আর ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে। তার প্রয়াণে শোকস্তব্ধ টলিউড।

সূত্র: হিন্দুস্থান টাইমস বাংলা

এখানে বিজ্ঞাপন দিন

spot_img