শিল্পকলায় চীনা সংস্কৃতির আসর

spot_img

সম্পর্কিত আর্টিকেল

৯ টাকা দেনমোহরে বিয়ের পিঁড়িতে অভিনেত্রী চমক

শোবিজ প্রতিবেদন: মাত্র ৯ টাকা দেনমোহরে বিয়ের পিঁড়িতে বসেন...

জটিল রোগে আক্রান্ত তাহসান দিলেন দুঃসংবাদ

গুরুতর জটিল রোগে আক্রান্ত দেশের জনপ্রিয় গায়ক, সুরকার, অভিনেতা...

সালমান মুক্তাদির হাসপাতালে

দেশের জনপ্রিয় ইউটিউবার ও অভিনেতা সালমান মুক্তাদির স্বাস্থ্য পরীক্ষার...

মোশাররফ করিমকে নিয়ে ‌‘আক্কেলগঞ্জ হোম সার্ভিস’

মোশাররফ করিমকে নিয়ে তৈরি হয়েছে টিভি ধারাবাহিক ‘আক্কেলগঞ্জ হোম...


বিনোদন প্রতিবেদক
চীন ও বাংলাদেশের বন্ধুত্বের সম্পর্ক প্রায় ৫৩ বছরের। দীর্ঘ এই সম্পর্কে সকল প্রতিকূল পরিস্থিতিতে লাল- সবুজের পতাকার দেশটির পাশে ছিলো চীন। দুই দেশের পারস্পরিক সম্পর্কের উদযাপনে শিল্পকলায় অনুষ্ঠিত হলো দ্য ২০২৪ ” ভয়েস অব স্প্রিং-গোল্ডেন ড্রিমস- ক্রস বর্ডার স্প্রিং ফেস্টিভ্যাল ইভিনিং গালা (ঢাকা সেশন) ” শিরোনামের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।
বুধবার সন্ধ্যায় শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার মূল মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয় এই আসর।
চীনের শিল্পের নান্দনিকতায় শিল্পীরা তুলে ধরে এশিয়ার প্রভাবশালী দেশটির শিল্পীরা। নাচে ও গানের সংমিশ্রণে চীনের কৃষ্টি কালচার তুলে ধরে চায়নিজ গায়ক গায়িকা ও নৃত্যপটিয়সীরা।
অনুষ্ঠানের শুরুতেই ” উইশ এ হ্যাপি এন্ড লাকী নিউ ইয়ার ” গানের সাথে দলীয়নৃত্য পরিবেশন করে ইউনান প্রদেশের শিল্পীরা। এরপর প্রার্থনা সংগীত পরিবেশন করে তারা। ধারাবাহিক পরিবেশনায় হৃদয়ে রবীন্দ্রনাথ ও চেতনায় নজরুল বাংলাদেশের শিরোনাম পর্বে বিপুল তরঙ্গ গান ও বিদ্রোহী কবিতার সাথে দলীয়নৃত্য পরিবেশন করে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির নৃত্য শিল্পীরা। অনুষ্ঠানে চীনা শিল্পীদের পাখির নৃত্য বিমোহিত করে এদেশের শিল্পানুরাগিদের। ” শোল্ডার বেল্ট” অ্যাক্রোবেটিকে মিলনায়তনে মুগ্ধতা ছড়ায় চীনের ইউনান প্রদেশের শিল্পীরা। চায়নিজ ভাষার গান ‘ মিসিং আনা চিয়ায়” আনন্দের ঢেউ খেলে যায় শিল্পকলা একাডেমিতে আগত দর্শক শ্রোতাদের মাঝে। আসরের অন্যতম পরিবেশনা ছিলো চায়নিজদের চোখ ধাঁধাঁনো যাদু।ইন্সট্রুমেন্টাল মিউকজিক গোল্ডেন ইকোস, দলীয় নাচ চায়নিজ দাই ও ময়ূর নাচে দেশটির দীর্ঘ দিনের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য তুলে ধরে চীনা শিল্পীরা। সাংস্কৃতিক সন্ধ্যায় যাদুর পরশ বইয়ে দেয় তাদের প্রতিটি পরিবেশনা।
আরো ছিলো বাংলাদেশের দামাল গানের সাথে দেশীয় শিল্পীদের লোকনৃত্য।
সবশেষে দুইদেশের বন্ধুত্বের নিদর্শন হিসেবে দলীয় গান পরিবেশন করে বাংলাদেশ ও চীনের শিল্পীরা।
এর আগে সংক্ষিপ্ত আলোচনায় বক্তৃতা করেন চীনা রাষ্ট্রদূত ইয়াও ওয়েন, বাংলাদেশের সমাজকল্যাণ মন্ত্রী ডা. দীপু মনি, শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী। আরো উপস্থিত ছিলেন চীনা দূতাবাস ও শিল্পকলা একাডেমির কর্মকর্তারা।

এখানে বিজ্ঞাপন দিন

spot_img