শুভেচ্ছা-ভালোবাসায় সিক্ত প্রফেসর মাইন উদ্দিন পাঠান

spot_img

সম্পর্কিত আর্টিকেল

৯ টাকা দেনমোহরে বিয়ের পিঁড়িতে অভিনেত্রী চমক

শোবিজ প্রতিবেদন: মাত্র ৯ টাকা দেনমোহরে বিয়ের পিঁড়িতে বসেন...

জটিল রোগে আক্রান্ত তাহসান দিলেন দুঃসংবাদ

গুরুতর জটিল রোগে আক্রান্ত দেশের জনপ্রিয় গায়ক, সুরকার, অভিনেতা...

সালমান মুক্তাদির হাসপাতালে

দেশের জনপ্রিয় ইউটিউবার ও অভিনেতা সালমান মুক্তাদির স্বাস্থ্য পরীক্ষার...

মোশাররফ করিমকে নিয়ে ‌‘আক্কেলগঞ্জ হোম সার্ভিস’

মোশাররফ করিমকে নিয়ে তৈরি হয়েছে টিভি ধারাবাহিক ‘আক্কেলগঞ্জ হোম...

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি : লক্ষ্মীপুরের কবি, সাহিত্যিক, শিক্ষাবিদ এবং ভক্ত-শুভাকাঙ্ক্ষীদের ফুলেল শুভেচ্ছা-ভালোবাসায় সিক্ত হলেন জেলার পথিকৃৎ সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ও শিক্ষাবিদ প্রফেসর মাইন উদ্দিন পাঠান।
১৮ জানুয়ারি বুধবার সন্ধ্যায় আবৃত্তি সংসদ লক্ষীপুরের আয়োজনে জমকালো এক আনুষ্ঠানিকতায় উদযাপন করা হয় জেলার শিল্প-সংস্কৃতির বাতিঘরখ্যাত আলোকিত ব্যক্তিত্ব প্রফেসর মাইন উদ্দিন পাঠানের ৬৪তম জন্মোৎসব।
অভিনব এবং বর্ণাঢ্য আনুষ্ঠানিকতায় সাজানো হয় আনন্দঘন এ আয়োজন। শুরুতে জেলা পরিষদ ভবনের ফটক থেকে হলরুম পর্যন্ত অর্ধ শতাধিক শিশুশিল্পী দুই সারিতে ফুল ছিটিয়ে এবং রংবেরঙের ফিতা নাড়িয়ে ‘শুভ শুভ দিন পাঠান স্যারের জন্মদিন’ স্লোগানে মুখরিত করার মধ্যে দিয়ে অভ্যর্থনা জানায় প্রিয় এই ব্যক্তিত্বকে।

মূল আনুষ্ঠানিকতা ছিল আরও বেশি চমকিত। জন্মোৎসব আনুষ্ঠানিকতার শুরুতে আয়োজকপর্ষদের পক্ষ থেকে আয়োজনের মধ্যমনিকে ফুলেল শুভেচ্ছা এবং উত্তরীয় পরিয়ে দেয়া হয়। এরপর বিশিষ্ট এই গুণীজনের সংক্ষিপ্ত জীবনী পাঠ করেন বাচিকশিল্পী সাথী এবং শিহান।  জেলার শিল্প-সংস্কৃতির বিশিষ্টজনদের শুভেচ্ছা বক্তব্যের ফাঁকে ফাঁকে আবৃত্তি সংসদের শিল্পীদের নানান পরিবেশনা এবং বিভিন্ন সংগঠনের ফুলেল শুভেচ্ছায় এগিয়ে চলে মনোমুগ্ধকর এই সন্ধ্যা। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- বিশিষ্ট চিকিৎসক ডা. আশফাকুর রহমান মামুন, জেলা শিল্পকলা একাডেমির কালচারাল অফিসার মনিরুজ্জামান মনির, বিশিষ্ট সংস্কৃতিজন শহীদুল্লাহ খন্দকার, লক্ষ্মীপুর থিয়েটারের সভাপতি বিশিষ্ট নাট্যজন অ্যাডভোকেট শৈবাল কান্তি সাহা, লক্ষ্মীপুর কলেজিয়েট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক খোদেজা খাতুন, মাহতাব উদ্দিন আরজু, মাসুম জুলকারনাইন প্রমুখ।
আবৃত্তি সংসদ-লক্ষ্মীপুরের সহ-সভাপতি রাফিয়া আক্তার রেশমা’র সভাপতিত্বে এবং ফারুক হোসেন শিহাব-এর প্রাণবন্ত সঞ্চালনায় আয়োজন জুড়ে ছিল সংগীত, নৃত্য, বৃন্দ আবৃত্তি,  প্রফেসর মাইন উদ্দিন পাঠান রচিত কবিতা পাঠ ও আবৃত্তি এবং তার রচিত ও নির্দেশিত নাটকের অংশবিশেষ পরিবেশনা।
সবশেষে, আবৃত্তি সংসদের পক্ষ থেকে উৎসব স্বারক এবং শুভেচ্ছা উপহার প্রদান, কেক কাটা ও প্রফেসর মাইন উদ্দিন পাঠানের আবেগঘন বক্তব্যের মধ্য দিয়ে হৃদয়গ্রাহী এ আয়োজনের সমাপ্তি ঘটে।
জন্মোৎসবের পূর্বক্ষণে আয়োজনের প্রথমপর্বে ছিল আবৃত্তি সংসদ, লক্ষীপুরের রজতজয়ন্তী আনুষ্ঠানিকতা। এ পর্বে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি প্রফেসর মাইন উদ্দিন পাঠান। অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিল্পকলা একাডেমির কালচারাল অফিসার মনিরুজ্জামান মনির, নাট্যজন শহীদুল্লাহ খন্দকার এবং অধ্যাপক কার্তিক সেনগুপ্ত। আলোচনার পর কেক কাটার মধ্য দিয়ে শেষ হয় রজতজয়ন্তী পর্ব।

এখানে বিজ্ঞাপন দিন

spot_img