পাইরেসি আর নিয়ম ভাঙার অভিযোগ নিয়ে চলছে ‘হুব্বা’

spot_img

সম্পর্কিত আর্টিকেল

৯ টাকা দেনমোহরে বিয়ের পিঁড়িতে অভিনেত্রী চমক

শোবিজ প্রতিবেদন: মাত্র ৯ টাকা দেনমোহরে বিয়ের পিঁড়িতে বসেন...

জটিল রোগে আক্রান্ত তাহসান দিলেন দুঃসংবাদ

গুরুতর জটিল রোগে আক্রান্ত দেশের জনপ্রিয় গায়ক, সুরকার, অভিনেতা...

সালমান মুক্তাদির হাসপাতালে

দেশের জনপ্রিয় ইউটিউবার ও অভিনেতা সালমান মুক্তাদির স্বাস্থ্য পরীক্ষার...

মোশাররফ করিমকে নিয়ে ‌‘আক্কেলগঞ্জ হোম সার্ভিস’

মোশাররফ করিমকে নিয়ে তৈরি হয়েছে টিভি ধারাবাহিক ‘আক্কেলগঞ্জ হোম...

বিনোদন প্রতিবেদক
ঈদ উৎসব বাদে, সপ্তাহে একটি বা দুটির অধিক নয়— এমন নিয়মে প্রযোজক ও পরিবেশক সমিতি থেকে মুক্তি পেয়ে আসছে সিনেমা। সম্প্রতি ‘কাগজের বউ’ ও ‘শেষ বাজি’ সিনেমা দুটি মুক্তির পাশাপাশি ভারত থেকে আমদানি করা সিনেমা ‘হুব্বা’ মুক্তি পেয়েছে। এতে নিয়ম ভাঙার অভিযোগ উঠেছে ‘হুব্বা’ সিনেমার আমদানিকারক প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে। এরই মধ্যে সিনেমাটি পাইরেসির কবলে পড়েছে বলে দাবি করেছেন সিনেমাটির আমদানিকারক প্রতিষ্ঠানের কর্ণধার আব্দুল আজিজ।
গত শুক্রবার বাংলাদেশ ও ভারতের পশ্চিমবঙ্গে মুক্তি পেয়েছে ব্রাত্য বসু নির্মিত সিনেমা ‘হুব্বা’। এর প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন মোশাররফ করিম। বেশকিছু ফেসবুক পেজ, ইউটিউব চ্যানেল ও ওয়েবসাইটে ছড়িয়ে পড়েছে সিনেমাটির পাইরেটেড কপি। ফেসবুকের বিভিন্ন গ্রুপে চলছে সিনেমাটির এইচডি লিঙ্ক নিয়ে নানা পোস্ট।
বিষয়টি নিয়ে আবদুল আজিজ বলেন, ‘বাংলাদেশ ও ভারতে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। এরই মধ্যে বেশকিছু সাইট থেকে এটি নামানো হয়েছে। আশা করি, দ্রুতই সব জায়গা থেকে পাইরেটেড কপি নামানো হবে। আমাদের টিম কাজ করছে।
সিনেমাটি দেশের ৬৩টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে। অন্যদিকে দেশের সিনেমা ‘কাগজের বউ’ ৯টি ও ‘শেষ বাজি’ ২০টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায়। নিয়ম না মেনে তিন সিনেমা মুক্তি নিয়ে ক্ষোভ ঝাড়েন ‘শেষ বাজি’ সিনেমার নায়ক সাইমন সাদিক। বিষয়টি নিয়ে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নীরব ভূমিকার কারণে সংগঠনটির সহ-সাধারণ সম্পাদকের পথ থেকে অব্যহতিও চেয়েছেন সাইমন।
অন্যদিকে ‘কাগজের বউ’ সিনেমার নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরী ক্ষোভ ঝেড়ে বলেন, ‘এখন দেশে ঈদ বা কোনো উৎসব নেই। স্বাভাবিক এ সময়ে প্রেক্ষাগৃহে সিনেমা মুক্তির বিষয়ে আমি যা জানি, তা ভুল মনে হচ্ছে। একজন নির্মাতা হিসেবে আমি জানি, উৎসব বা ঈদে একাধিক সিনেমা প্রেক্ষাগৃহে মুক্তির নিয়ম রয়েছে। কিন্তু স্বাভাবিক সময়ে প্রতি শুক্রবারে নিয়ম রয়েছে মাত্র দুটি সিনেমা প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাওয়ার।
তিনি আরও বলেন, ‘এ দুটি সিনেমা হতে পারে একটি বাংলাদেশি কিংবা বিদেশি অথবা দুটিই বাংলাদেশি সিনেমা। এখন দুটি বাংলাদেশি সিনেমাই যদি দেশে মুক্তি পায় সেক্ষেত্রে একটি বিদেশি সিনেমা কীভাবে দেশের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায়?’
এদিকে আব্দুল আজিজের দাবি, নিয়ম মেনেই সিনেমাটি মুক্তি দেয়া হয়েছে।

এখানে বিজ্ঞাপন দিন

spot_img